ভুয়া খবর সনাক্ত করার ৫টি সহজ উপায় ও করণীয়

বর্তমান সময়ে যেকোন তথ্যের সত্যতা যাচাই এর জন্য ভুয়া খবর সনাক্ত করা অত্যন্ত জরুরি। আজকে আমরা আলোচনা করবো ভুয়া খবর সনাক্ত করার ৫টি সহজ উপায় ও করণীয় সম্পর্কে। আশা করছি আপনি সাথেই থাকবেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বহুল ব্যবহারের এই সময়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভুয়া খবর বা ফেক নিউজ ছড়িয়ে পড়ছে প্রতি নিয়ত। যেকোন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি বা সমসাময়িক বিভিন্ন ঘটনাকে পুঁজি করে অসত উদ্দেশ্য হাসিল করার জন্য ছড়ানো হয় এইসব মিথ্যা খবর বা ফেক নিউজ।

তথ্য প্রযুক্তির বিকাশের এই সময়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা সচেতনতার অংশ হিসেবে ভুয়া খবর সনাক্ত করার খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি কাজ। অন্যথায় ব্যক্তিগত, সামাজিক বা রাষ্ট্রীয় জীবনে ঘটে যেতে পারে ভয়ানক সমস্যা।

ভুয়া খবর সনাক্ত করার জন্য করণীয়

পাঁচটি দিক খেয়াল করলেই সনাক্ত করা সম্ভব ভুয়া খবর। চলুন এই বিষয়ে বিস্তারিত জানার চেষ্টা করি-

১. সামাজিক যােগাযােগ মাধ্যমের ব্যবহার

দেশব্যাপী ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের বেশিরভাগই তরুন এবং এদের ইন্টারনেটের ব্যবহারের অনেকটা সময়ই কাটে সামাজিক যােগাযােগ মাধ্যমে।

তাই কিশাের বা তরুণদের মধ্যে সামাজিক যােগাযােগ মাধ্যম বিশেষ করে ফেসবুক থেকে নিউজ কালেক্ট করার প্রবণতা বেশি। একারণে অল্প সময়ের মধ্যে বেশি পাঠক ও ওয়েবসাইটের ভিউয়ার আকৃষ্ট করার জন্য ভুয়া খবরগুলাে ছড়ানাে হয় ফেসবুকের মাধ্যমে।

সুতরাং খবরের ক্ষেত্রে অবশ্যই সামাজিক যােগাযােগমাধ্যমের পরিবর্তে মূলধারার বিশ্বাসযােগ্য গণমাধ্যমের প্রতি নির্ভরশীল হওয়া প্রয়ােজন।

২. উত্তেজনাপূর্ণ শিরােনাম

ভুয়া খবরের একটি স্বাভাবিক প্রবণতা হলাে, উত্তেজনাপূর্ণ শিরােনাম। অনেক সময় এসব খবরের শিরােনামে জাতি, ধর্ম, বর্ণ নিয়ে অশ্লীল, ইঙ্গিতপূর্ণ বা সাম্প্রদায়িক উস্কানি দেওয়া হয়। আপনার সামাজিক মাধ্যমের।

ফিডে যদি এমন কোন খবর দেখতে পান, যা বাস্তবতার সাথে ঠিক খাপ খায় না, তখনি আপনার সতর্ক হওযার প্রয়ােজন।

এক্ষেত্রে অবশ্যই যে কোন খবর বিশ্বাস করবার আগে ভালাে করে দেখতে হবে যে এতে দায়িত্বশীল কারাে বক্তব্য বা কোন বিশ্বাসযােগ্য তথ্য সূত্র আছে কি না।

৩. শিরােনামের সাথে বিষয়বস্তু বা তথ্যের অসংলগ্নতা

ভুয়া খবরের শিরােনামে পাঠককে চমকে দিতে অবাস্তব কথাবার্তা লেখা হয়ে থাকে। খবরের শিরােনামের সঙ্গে ভেতরের লেখার বিষয়বস্তু সবসময় মেলে না। শেষে দাঁড়ির বদলে একটি বিস্ময়সূচক চিহ্ন দেওয়া হয়ে থাকে। প্রচুর বানান ভুল এবং ফরমেটিং এর সমস্যা দেখা যায়।

এসব খবরে কমেন্ট বা শেয়ার করার আগে অবশ্যই দেখতে হবে কোন ওয়েব সাইট থেকে তা শেয়ার করা হয়েছে।

ভুয়া খবর সনাক্ত করার ৫টি সহজ উপায় ও করণীয়
ছবি: ভুয়া খবরের নমুনা

সামাজিক যােগাযােগ মাধ্যমে এধরনের চটকদার খবর পড়া কিংবা এসব লিংকে ক্লিক করা থেকে বিরত থাকুন। এধরনের লিংকে ক্লিক করে আপনি যেমন ভুয়া খবর বা গুজবের স্বীকার হতে পারেন ঠিক তেমনই এর আড়ালে লুকিয়ে থাকা কোন স্বার্থান্বেষি মহল আপনার একাউন্ট হ্যাক করে হাতিয়ে নিতে পারে আপনার মূল্যবান তথ্য। (ভুয়া খবর সনাক্ত)

৪. সন্দেহজনক ওয়েবসাইট ইউআরএল

ভুয়া খবর সনাক্তকরণের ক্ষেত্রে ফ্যাক্ট চেক বা খবরের সত্যতা যাচাইয়ের উপর গুরুত্ব দেয়া জরুরি। দুবৃত্তরা অনেক সময় জনপ্রিয় গণমাধ্যমগুলাের নাম বা নামের কোনও অক্ষর সামাণ্য হেরফের করে ভুয়া আইডি থেকে মিথ্যা খবর শেয়ার দেয়।

এক্ষেত্রে ওয়েব সাইটের ব্যাপারে নিশ্চিত হতে অনলাইনে সার্চ করে দেখতে পারেন। বিশ্বের ওযেবসাইট ঠিকানার বিষযাদি দেখভাল করে থাকে আইক্যান (ICANN);

এদের ওয়েবঅ্যাড্রেস হল – www.whois.icann.org কোন ওযেবসাইট নিয়ে আপনার সন্দেহ হলে, আইক্যানের ডােমেইন অনুসন্ধান পাতায় গিয়ে ওয়েবসাইটের ঠিকানাটি লিখে দিন বা পেস্ট করুন।

এখানে ওযেবসাইটটি কবে তৈরি হয়েছে, কে তৈরি করেছে এসব বিস্তারিত জানতে পারবেন।

৫. ভুয়া খবর সনাক্ত করতে খবরে ব্যবহৃত ছবির উৎস যাচাই

ছবির উৎস চেক করুন। ভুয়া খবরের গ্রহণযােগ্যতা তৈরির জন্য প্রায়ই পুরানাে, ভিনদেশি ভিন্ন কোন ঘটনার উত্তেজক ছবি বা ভিডিও ব্যবহার করা হয়ে থাকে। ছবি দেখলেই খবরের বিষয়বস্তু বিশ্বাস করে ফেলবেন না।

ভালাে মতাে লক্ষ্য করুন ছবিটি আসল বা এডিটেড কিনা এবং এর মাধ্যমে কোন ধরণের বার্তা দেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে। যে কোন ছবি নিয়ে সন্দেহ হলে গুগলের রিভার্স ইমেজ সার্চ ব্যবহার করে ছবির উৎস অনুসন্ধান করতে পারেন।

এজন্য image.google.com-ওয়েবসাইটে গিয়ে খবরে ব্যবহৃত ছবিটি আপলােড দিয়ে বা ছবিটির লিঙ্ক পেস্ট করে সার্চ দিলে এর উৎস, ঘটনাস্থল এবং সংশ্লিষ্ট খবরাখবর বিস্তারিত জানতে পারবেন।

৫. খবরে ব্যবহৃত ছবির উৎস যাচাই
ছবি: গুগল ইমেজ এর মাধ্যমে ছবি উৎস যাচাই

গুগল ইমেজ ব্যবহার করে খুব সহজেই আপনি যেকোন ছবির সত্যতা যাচাই করে দেখতে পারেন।

ভুয়া খবর সনাক্ত করার ৫টি সহজ উপায় ও করণীয় সংক্রান্ত আরও তথ্য জানতে নিচের ভিডিওটি দেখুন

ক্রেডিট: মুক্তপাঠ

সুতরাং আপনার নিউজফিডে কোন স্পর্শকাতর খবর পাওযার সাথে সাথে সেটা বিশ্বাস করে মন্তব্য করা বা শেয়ার করার আগে অন্তত একবার ভাবুন।

কোন দুষ্কৃতিকারী আপনার এই সহমর্মিতার অপব্যবহার করছে না তাে? এক্ষেত্রে আপনার সচেতনতা ও বিচক্ষণতাই পারে কোনরুপ অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি ঠেকাতে।

তাই আপনি সােশ্যাল মিডিয়ায় কি পড়বেন, কাদের বন্ধু বানাবেন, কাদের কথা বিশ্বাস করবেন সে ব্যাপারে সঠিক সিদ্ধান্ত নেবার জন্য সবসময় সচেতন ও বিচক্ষণ হােন।

ভুয়া খবর সনাক্ত করার ৫টি সহজ উপায় ও করণীয় এই তথ্যটি কোনো প্রকার ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যে নয় বরং জনগণের কল্যাণে বহুল প্রচারের লক্ষ্যে অধ্যয়ন ডট কম এর পাঠকদের সুবিদার্থে প্রকাশ করা হয়েছে। এটি সরাসরি বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন এর সূত্র থেকে সংগৃহিত। এতে কারও কোনো আপত্তি থাকলে রিমুভ করার অনুরোধ করতে পারেন: [email protected] অথবা সরাসরি আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। 

অধ্যয়ন ডট কম এর সকল আপডেট সবার আগে পাওয়ার জন্য আমাদের ফেসবুক পেইজটি লাইক ও ফলো রাখুন এবং ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করে রাখুন। প্রতিদিন শিক্ষা সংক্রান্ত সকল তথ্য পেতে আমাদের দৈনিক শিক্ষা ক্যাটাগরি দেখুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: এই কনটেন্ট কপি করা যাবেনা! অন্য কোনো উপায়ে কপি করা থেকে বিরত থাকুন!!!